Skip to content Skip to footer

মাসুম তালুকদার

একজন চাকরিদাতা উদ্যোক্তার নাম মাসুম তালুকদার


বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চলের জেলা * এ ১৯৮৫ হভপঠ মাসুম তালুকদারের জন্ম। অন্যদের মতই তিনি পড়ালেখা শেষ করে চাকরি করে জীবনটাকে চালাবেন এই স্বপ্নে বিভোর থাকতেন, ২০০৫ সালে ডিপ্লোমা পাশ করে চাকরি প্রাপ্তির আশায় তিনি ঢাকা শহরে চলে আসেন, কিন্ত চাকরির বাজার যে সোনার হরিণ, অনেক ঘুরাঘুরির পর বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে একটি চাকরিও পেয়ে যান, চাকরিতে কাজের এতো চাপ তার জানা ছিলনা। শেষ পর্যন্ত তাকে চাকরিটি ছাড়তেই হল।
কি করবেন ভেবে পাচ্ছিলেন না, শেষে তার পরিচিত এক বন্ধুর সাথে যৌথভাবে কাপড়ের ব্যবসা শুরু করেন, ব্যবসা করার যে অভিজ্ঞতা প্রয়োজন তা তাদের নেই ফলে ব্যবসায় ভাল লাভ হলো না। ব্যবসাটি ছেড়ে আবারও চাকরি খুঁজতে থাকেন, অবশেষে তিনি একটি হস্তশিল্প সামগ্রী তৈরির প্রতিষ্ঠানে চাকরি পেয়ে যান। এই কারখানায় কাজ করার ফলে তার ব্যাপক অভিজ্ঞতা হয়, তিনি ভাবতে থাকেন নিজেই একটি প্রতিষ্ঠান খুলবেন।
২০১৪ সালে মোহাম্মদপুর ঢাকা উদ্যান এলাকায় হস্তশিল্প ব্যবসা শুরু করেন, এক বছর পর তিনি বুঝতে পারলেন ব্যবসাটি তেমন লাভ হচ্ছে না। আবারও তিনি হতাশ হয়ে পড়েন, তারই এক পরিচিত বন্ধুর মাধ্যমে বি’ইয়া প্রতিষ্ঠানের কথা জানতে পারেন এবং যোগাযোগ করেন। ২০১৬ সালে বি’ইয়া’র সাথে যুক্ত হয়ে গ্রহণ করেন বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ। বুঝতে পারলেন ব্যবসায়িক নানা ধরনের কৌশল। যোগাযোগ ঘটে বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং বিভিন্ন তরুণ উদ্যোক্তাদের সাথে। বৃদ্ধি পায় নেটওয়ার্ক ও আত্মবিশ^াস।
শুরু করেন নতুন উদ্যোমে। সর্বদা যোগাযোগ রাখেন বি’ইয়া’র সাথে। এভাবে অল্প কয়েক মাসের মধ্যেই তিনি তার প্রতিষ্ঠানকে দাঁড় করাতে সক্ষম হন। এখন ঢাকা উদ্যান এলাকায় তার একটি ছোট গার্মেন্টস কারখানা রয়েছে, যেখানে নিয়মিত ৫ জন কর্মচারী কাজ করছে। তার ব্যবসার পুঁজি এখন আনুমানিক ২০ লক্ষ টাকা। তিনি আশা করেন ভবিষ্যতে একটি বড় পরিসরে কারখানা গড়ে তুলবেন যেখানে শুধু নারীদের পোষাক তৈরি হবে। অনেক মানুষের কর্মসংস্থান হবে। আর অন্যান্য তরুণরাও চাকরি না খুঁজে চাকরিদাতায় পরিণত হওয়ার উৎসাহ পাবে।

Leave a comment